1. admin@narsingdinews24.com : মাসুদ খান : মাসুদ খান
  2. kdalim@gmail.com : ডালিম খান : ডালিম খান
  3. masudkhan89@yahoo.com : মোমেন খান : মোমেন খান
এই মাত্র পাওয়া :
শিবপুরে হাজী আফছার উদ্দিন ভূইয়ার ২য় মৃত্যু বার্ষিকী পালিত হয়েছে শিবপুরে প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া চাইলেন আলহাজ্ব হারুনুর রশিদ খান নরসিংদীতে এবার পৌর নির্বাচন: আ.লীগের ৪ বিদ্রোহী প্রার্থী নরসিংদী পৌর নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন জমা দিলেন রাজু মোল্লা নরসিংদীতে এবার পৌর নির্বাচন: আ.লীগের ৪ জন বিদ্রোহী প্রার্থী নরসিংদীর দুটি ইটিভাটায় ৪ লাখ টাকা জরিমানা আদায় নরসিংদীতে ডিবি পুলিশের অভিযানে ২০০ লিটার চোলাইমদসহ ৩ জন গ্রেফতার নরসিংদী পৌরসভার মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন হারুন-অর-রশিদ শিবপুরে দূর্বত্তদের আগুনে খড়ের পুঞ্জ পুড়ে ছাই নরসিংদী পৌর নির্বাচনে ৭নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে জহিরুল ইসলামের ব্যাপক জনমত

শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: হারুনুর রশীদ খানের প্রতিবাদ

  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৬৩১ দেখেছেন

 

 

নিজস্ব প্রতিনিধি /রবিবার ১৩ ডিসেম্বর ২০২০ দৈনিক কালের কন্ঠ পত্রিকার ১ম পাতায় ৬ ও ৭ কলামে শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি, দল নয়, নিজের আখের গোছাতে ব্যস্ত তিনি! শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমার দৃষ্টি গোচর হয়েছে।সংবাদের প্রথম অংশে দলে কিংবা পরিষদে আমার একক স্বেচ্ছাচারিতা, দলীয় পদ ব্যবহার করে অপকর্ম এবং দলের নেতাকর্মীরা ও প্রশাসনের চাপা ক্ষোভের কথা বলা হয়েছে। যা সম্পূর্ন মিথ্যা ও বানোয়াট এবং উদ্দেশ্য প্রণোদিত। আমি অত্যন্ত সুনামের সহিত নিয়মতান্ত্রিক ভাবে উপজেলা পরিষদ এবং দলের গঠনতন্ত্র অনুয়ায়ী দল পরিচালনা করে আসছি। দলীয় নেতাকর্মী ও প্রশাসনের সাথে আমার সু সম্পর্ক রয়েছে। আমার বাড়ী কোন সরকারী জমিতে নয় আমার পৈত্রিক ও ক্রয়কৃত জমিতেই করা হয়েছে। তাছাড়া এই জমি নিয়ে মামলা মোকদ্দমার রায় আমার পক্ষে আছে। আমি জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। আমি কখনো নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে নির্বাচন করি নাই বরং আমার দক্ষতা ও সাংগঠনিক নেতৃত্বেই নৌকার প্রার্থী একাধিকবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে আসছে। আমি কখনো দল থেকে বহিস্কার হয়নি এবং সম্মেলনের মাধ্যমে ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নেতা নির্বাচন করা হয়। এখানে কোন অর্থের সম্পর্ক নেই।সরকারী জমিতে আওয়ামীলীগের সভাপতির ভবন: সরকারী জমিতে আমার কোন ভবন নেই। এই জমি আমার পৈত্রিক ও ক্রয়কৃত। তাছাড়া জমি নিয়ে যেই মামলা হয়েছিল তার রায় আমার পক্ষে আছে। ২০২০ সালে এসে ২০১০ সালের তথ্য দিয়ে সংবাদ লেখা হয়েছে, যা হাস্যকর দায়িত্বহীন এবং হলুদ সাংবাদিকতার বহি:প্রকাশ।দলে স্বেচ্ছাচারিতা: আমি দলীয় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দল পরিচালনা করে আসছি। আমার নেতৃত্বে শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সকল সহযোগী সংগঠন এখন অনেক শক্তিশালী এবং সু সংগঠিত। উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ রয়েছে। কোন অনুপ্রবেশকারী শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগে নেই। যারা দলকে ভালনা বেশে এমপিলীগ করতে চায় তারা এসব মিথ্যা রটাচ্ছে।নৌকার বিরুদ্ধাচারণ: আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে আমি নাকি ১৯৯১, ১৯৯৬ ও ২০০১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচন করেছি। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। আমি অত্যান্ত সাহসিকতার সাথে জীবনের ঝুকি নিয়ে বিএনপির প্রভাবশালী প্রার্থী আব্দুল মান্নান ভূঁইয়ার সাথে লড়াই করে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে মাঠে কাজ করেছি। অথচ আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত করা হয়েছে।২০০৮, ২০১৪ ও সবশেষ ২০১৮ সালের নির্বাচনে আমি দলীয় প্রার্থী জহিরুল হক ভূঞা মোহনের পক্ষে কাজ করেছি। আমার ও আমার সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম রাখিলের নেতৃত্বেই তিনি এ পর্যন্ত দুইবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। আমি মোহন সাহেবের বিরুধিতা করিনি বরং মোহন সাহেব এবং তার অনুসারীরা ২০০৯, ২০১৪ ও ২০১৯ সালে উপজেলা নির্বাচনে আমার বিরুধিতা করেছেন। যা আমি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে লিখিতভাবে জানিয়েছি। তাছাড়া দলীয় নেতাকর্মীরা অবগত আছে।
অপসারণযোগ্য অপরাধে মন্ত্রনালয়ের শোকজ: শিবপুরের এমপির প্ররোচনায় সাবেক ইউএনও মো: হুমায়ন কবীর সাহেব উপজেলা পরিষদ আইন, বিধি ও নীতিমালা বহির্ভূতভাবে হাটবাজারসহ নানাবিধ হিসাব নিকাশ, এডিপিসহ নানা প্রকল্পের কার্যক্রমে অনিয়ম করেছেন। আর এসব অনিয়মের প্রতিবাদ করে উপজেলা পরিষদ এর সকল জনপ্রতিনিধি একত্রে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী, বিভাগীয় কমিশনারের বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। ফলে বিভাগীয় কমিশনারের তদন্তে কারণ দর্শীয়ে ইউএনওকে বদলী করা হয়। ওই কারণ দর্শনোর জবাবে ইউএনও আমার বিষয়ে উল্লেখ করেন। আমি উপজেলা পরিষদের ম্যানুয়েল অনুযায়ী জবাব দিয়েছি। আমি কোন অন্যায়ের সাথে আপোস করিনি।উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সকল অঙ্গ সংগঠন আমার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকায় এমপি জহিরুল হক ভূঞা মোহন দলীয় নেতাকর্মী ও জনগন থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এখন আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন।আমার জনপ্রিয়তায় ঈষন্বিত হয়ে সমাজে ও রাজনৈতিক অঙ্গনে আমার ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য এমপি মোহন ও তার কতিপয় অনুসারীরা আমার বিরুদ্ধে এসব মিথ্যা বানোয়াট সংবাদ প্রকাশ করেছে। এতে কেউ বিভ্রান্ত হবেন না। আমি উক্ত মিথ্যা বানোয়াট সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
এদিকে শিবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ভূইয়া রাখিল বলেছেন, শিবপুর আওয়ামীলীগ মানেই হারুনুর রশীদ খান। শিবপুরের আওয়ামীলীগ হারুনুর রশীদ খানের নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ আছে এবং থাকবে। কোন চক্রান্তই হারুনুর রশীদ খানের নেতৃত্ব ধংস করতে পারবে না। উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: হারুনুর রশীদ খানের নেতৃত্বে সকল অপশক্তি রুখে দিয়ে আমরা এগিয়ে যাব ইনশাআল্লাহ।

শেয়ার করুন

একই বিভাগের আরও খবর
© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব Narsingdiews24.comকর্তৃক সংরক্ষিত