1. admin@narsingdinews24.com : মাসুদ খান : মাসুদ খান
  2. kdalim@gmail.com : ডালিম খান : ডালিম খান
  3. masudkhan89@yahoo.com : মোমেন খান : মোমেন খান
এই মাত্র পাওয়া :
নরসিংদীতে চিরায়ত নিয়মে বিদায় নিলেন পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিপিএম(বার), পিপিএম শিবপুরে নরসিংদী জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ ঘোড়াশাল পৌরসভার উদ্যোগে ৫ হাজার অসহায় শীতার্ত মাঝে কম্বল বিতরণ -এক মধ্যে স্যামসাংয়ের পণ্য বিদেশে রপ্তানী করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখবে ॥ তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী মাধবদী নতুন থানার উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ার্দার নরসিংদীতে পৌর নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করলেন- আশরাফ হোসেন সরকার মুজিব আদর্শ ভুকে ধারণ করে জনগণের সেবক হতে চান শিবপুরে মোশারফ হোসেন ভূইয়া নরসিংদীর জেলা উপজেলা পরিষদের চেয়ারমানবৃন্দের সাথে পলিশ সুপারের বিদায়ী সাক্ষাৎ নজরুল ইসলাম কে ইউপি চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চায় শিবপুর পুটিয়া ইউনিয়নবাসী শিবপুরে জনপ্রিয়তার শীর্ষে আ.লীগের নেতা জাহিদুল হক দিপু

মামুনুল-ফয়জুলের বক্তব্যে অনুপ্রাণিত হয়ে দুই মাদ্রাসাছাত্র ভাস্কর্য ভাঙচুর করেন: পুলিশ

  • আপডেট সময় : রবিবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৪৮ দেখেছেন

কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁদের মধ্যে দুজন মাদ্রাসার শিক্ষক ও দুজন মাদ্রাসার ছাত্র।

পুলিশ বলছে, হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের জ্যেষ্ঠ নায়েবে আমির সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীমের বক্তব্য শুনে উদ্বুদ্ধ উদ্বুদ্ধ হয়ে দুই মাদ্রাসাছাত্র বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর করেছেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন-মাদ্রাসাছাত্র আবু বক্কর মিঠন (১৯), সবুজ ইসলাম নাহিদ (২০) এবং মাদরাসা ইবনি মাসউদ (রা.) নামে একটি মাদ্রাসার শিক্ষক আল আমিন ও ইউসুফ আলী।

রোববার বিকেলে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশের খুলনা রেঞ্জের ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন এসব তথ্য জানান। এসময় অতিরিক্ত ডিআইজি কে এম নাহিদুল ইসলাম, কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভির আরাফাতসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ডিআইজি ড. খন্দকার মহিদ উদ্দিন বলেন, মাদ্রাসাছাত্র আবু বক্কর মিঠন (১৯) ও সবুজ ইসলাম নাহিদ তাদের মাদ্রাসা থেকে প্রায় ৩ কিলোমিটার পথ পায়ে হেঁটে এসে ভাস্কর্য ভাঙচুর করে। সিসি ক্যামেরার ফুটেজ বিশ্লেষণ করে দেখা যায় সাদা পাঞ্জাবী, পাজামা ও কালো কোট পরা ওই দুই ছাত্র মই বেয়ে ভাস্কর্যের বেদিতে ওঠে। পরে একজনের কাছে থাকা ব্যাগ থেকে হাতুড়ি বের করে ভাস্কর্যে ভাঙচুর চালায়। মিশন শেষ করে তারা একইভাবে পায়ে হেঁটে মাদ্রাসায় ফিরে বিষয়টি দুই শিক্ষককে (গ্রেফতার হওয়া) জানান। এ সময় শিক্ষকরা ওই ছাত্রদের মাদ্রাসায় না থেকে বাড়ি চলে যেতে বলেন। এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে ২৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করেছে পুলিশ। মাদ্রাসা থেকে হাতুড়ি উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেখানে সাদা রঙ লেগেছিল।

শেয়ার করুন

একই বিভাগের আরও খবর
© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সকল স্বত্ব Narsingdiews24.comকর্তৃক সংরক্ষিত