ইতালিতে জরুরি অবস্থা জারি আইন অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশি কে আটক করেছে ইতালি পুলিশ।

20200316_212559.jpg

নরসিংদী নিউজ ডেস্কঃ
নভেল করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বিপর্যস্ত ইতালিতে জারি করা জরুরি অবস্থা (রেড জোন) আইন অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছে। রবিবার (১৫ মার্চ) সন্ধ্যায় ইতালির নাপোলির সান জুসেপ্পে ভেসুভিয়ানো এলাকা থেকে তাদের আটক করে স্থানীয় পুলিশ।
ইউরোপের মধ্যে ইতালিতে সবচেয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনা ভাইরাস। ইতালিতে আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ হাজার ৭৪৭। এরমধ্যে এক হাজার ৮০৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসা গ্রহণের পর সুস্থ হয়ে উঠেছে দুই হাজার ৩৩৫ জন।
করোনার বিস্তার ঠেকাতে ইতোমধ্যে পুরো ইতালিকে রেড জোনের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। দেশটির সব শহরের প্রবেশদ্বারে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এক শহর থেকে অন্য শহরে যাতায়াত করতে দেওয়া হচ্ছে না। শহরে মাইকিং করে ঘর থেকে বের না হওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে। এরপরও যারা অকারণে বাইরে বেরোচ্ছেন তাদের জরিমানা গুণতে হচ্ছে, পড়তে হচ্ছে শাস্তির মুখেও।
রেড জোনের আইন কেউ অমান্য করলে ২০৬ ইউরো জরিমানার বিধান করা হয়েছে। অন্যথায় ৩ মাস থেকে ২১ বছর পর্যন্ত জেলও হতে পারে। তবে সরকারি অনুমোদন সাপেক্ষে সফরের সুযোগ রয়েছে।

স্থানীয় পৌর প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আটককৃত বাংলাদেশিরা খাদ্য সামগ্রী ক্রয় কিংবা জরুরী প্রয়োজনে বের হওয়ার কোনও প্রমাণ পুলিশকে দেখাতে পারেননি।
রেড জোন’র আওতায় সরকারি নির্দেশনা অনুসারে, এই পরিস্থিতিতে নির্দিষ্ট কারণ চিহ্নিত একটি অনুমতি পত্রে নির্দিষ্ট স্থানে বাইরে যাওয়ার অনুমতি রয়েছে। কিন্তু আটক বাংলাদেশিরা এই নিয়ম মেনে চলেননি।
এছাড়া একজনের কাছ থেকে অপর জনের ১ মিটার দুরত্ব বজায় রাখতে ইতালির সরকারের নির্দেশনা থাকলেও তারা তা মানেননি। ফলে ইতালির আইনে পুলিশ ৬৫০ ধারায় ৯ জন বাংলাদেশিকে আটক এবং সরকারী আইন লঙ্ঘন করায় সংশ্লিষ্ট আইনে জনপ্রতি ২০৬ ইউরো জরিমানা করেঠে।

পরে করোনা সন্দেহে যাচাইকরণের জন্যতাদেরকে দুই সপ্তাহের জন্য হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে পুলিশ।

আমাকে শেয়ার করুন

PinIt
scroll to top