সারা দেশে ৬৩ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত

FB_IMG_1582451194472.jpg

নরসিংদী নিউজ ২৪: শিশুদের মধ্যে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ সৃষ্টির লক্ষে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা দেখা গেছে। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা বিদ্যালয় আঙ্গিনায় হাতের লেখা পোস্টার সাঁটিয়েছে এবং প্রার্থীরা সহপাঠীদের নিকট ভোট প্রার্থনা করছে।
নির্বাচনে নিরাপত্তা দায়িত্ব পালন করতে শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে আনসার ও পুলিশ নিয়োগ করা হয়েছে। এছাড়া নির্বাচন কমিশনার, প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব শিক্ষার্থীরাই পালন করছে।
শিক্ষা অফিস সূত্র জানা যায়, সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত এক যোগে দেশের ৬৩ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই নির্বাচনে ভোট দেবে মোট ৭৬ লাখ ৬২ হাজারের বেশি খুদে ভোটার। তৃতীয় শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা এ নির্বাচনে ভোট প্রদান করছে।
শিবপুর উপজেলার চক্রধা ইউনিয়নের মজলিশপুর বালিকা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচনে সাতটি পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে। তার মধ্যে ৫ম শ্রেণির পদপ্রার্থী জুবায়ের খান উষ্ণ ৪৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছে। যেখানে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৬৬ জন। এদের মধ্যে ছাত্র ভোটার ৩০ এবং ছাত্রী ভোটার ৩৬ জন।
প্রধান শিক্ষক সাদিয়া আফরিন সাথী জানান, তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণি থেকে সাতজন প্রার্থী জয়ী হবে। তারা স্বাস্থ্য, বন ও পরিবেশ বিষয়ক, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, আপ্যায়ণসহ সাতটি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করবে।
লাখপুর শিমুলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা মোমেন খান বলেন, গত বছরের ন্যায় এবারও উৎসব মুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শিশুদের মধ্যে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ গড়ে তোলার জন্যই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে ২০১০ সালে স্টুডেন্টস কাউন্সিলের কার্যক্রম শুরু করেছিলেন। শিশুকাল থেকেই গণতন্ত্র চর্চা ও গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি শিক্ষার্থীদের শ্রদ্ধাশীল হওয়া, অন্যের প্রতি সহিষ্ণুতা বৃদ্ধি, ঝরে পড়া রোধে সহযোগিতার লক্ষ্যে প্রাথমিকেও স্টুডেন্টস কাউন্সিল গঠনের গুরুত্ব অপরিসীম।

আমাকে শেয়ার করুন

PinIt
scroll to top