মুজিববর্ষ উপলক্ষে ৬৮ হাজার দরিদ্র পরিবার পাবে নতুন পাকা বাড়ি

IMG_20200213_092252.jpg

বাতাঃ মুজিববর্ষ উপলক্ষে দেশের ৬৮ হাজার ৩৮টি গ্রামে একটি করে মোট ৬৮ হাজার ৩৮টি দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি দুস্থ ও দরিদ্র পরিবারের মাঝে বিতরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। প্রতিটি বাড়িতে খরচ হবে ২ লাখ ৯৯ হাজার ৮৬০ টাকা। চলতি ও আগামী অর্থবছর এসব বাড়ি নির্মাণ করা হবে।

মন্ত্রণালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্র জানায়, সারা দেশের উপকূলীয় অঞ্চল, নদী ভাঙনের শিকার, হতদরিদ্র, সহায় সম্বলহীন, ভূমিহীন ও প্রান্তিক পর্যায়ের সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে এসব বাড়ি নির্মাণ করে দেবে উপজেলা প্রশাসন, জেলা পরিষদ, ইউনিয়ন পরিষদের তত্ত্বাবধানে।
অর্থ বিভাগের একটি সূত্র জানায়, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের আওতায় ৩০ হাজার বাড়ি নির্মাণ সম্পন্ন করতে ৮৯৯ কোটি টাকা চেয়ে গত সপ্তাহে অর্থ বিভাগে চাহিদাপত্র পাঠিয়েছে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়।

এতে বলা হয়, মানুষের জীবনমান উন্নয়নের স্বার্থে প্রতি গ্রামে গৃহহীন একটি করে পরিবারকে একটি পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়া হবে। এতে খরচ হবে ২ লাখ ৯৯ হাজার ৯৬ টাকা, যা ভ্যালনারেবল গ্রুপ ফিডিং (ভিজিএফ)-এর আওতায় ব্যয় করা হবে। চলতি বছরের বাজেটে ভিজিএফ খাতে বরাদ্দ থাকা অব্যয়িত অর্থ স্থানান্তর করে ও আগামী ২০২১ অর্থবছরের বাজেটের একই খাতের অর্থ মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাড়ি নির্মাণে ব্যয় করা হবে।

এ বিষয়ে মুজিববর্ষ উদযাপনের প্রধান সমন্বয়কারী সাবেক সিনিয়র সচিব ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে সরকার ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এর অংশ হিসেবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় গৃহহীনদের বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়ার প্রকল্প হাতে নিয়েছে।

বিশ্বব্যাংকের তথ্যমতে, দেশের প্রায় চার কোটি মানুষ এখনো দরিদ্র। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য একটা অংশ রয়েছে যারা ভূমিহীন ও গৃহহীন। প্রান্তিক এলাকার পাশাপাশি খোদ রাজধানী ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরেও গৃহহীন মানুষ রয়েছে।

আমাকে শেয়ার করুন

PinIt
scroll to top